আজকের ইফতার ৬টা ৩৪ মিনিটে

75

বিশ্বজুড়ে শুরু হয়েছে পবিত্র মাহে রামাজানের সিয়াম সাধনা। ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা রোজা রাখছেন আল্লাহ তা’লাকে সন্তুষ্ট করতে। আর রোজাদারদের দুটি আনন্দের সময় রয়েছে একটি হচ্ছে ইফতারের সময় অন্যটি মহান প্রতিপালক আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সাথে সাক্ষাৎ।
বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সময়ানুযায়ী আজ বুধবার দ্বিতীয় রমজান তথা ৮ মে ২০১৯। আজ ঢাকায় ইফতার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ৬টা ৩৪ মিনিটে।
ইফতারের দোয়া: আল্লাহুম্মা ছুমতুলাকা ওয়া তাওয়াক্কালতু আ’লা রিজক্বিকা ওয়া আফতারতু বি রাহমাতিকা ইয়া আর হামার রাহিমিন।
দেশের বিভিন্নস্থানে ইফতারের সময়ের পার্থক্য রয়েছে। ঢাকার সময় থেকে এক মিনিট আগে অর্থাৎ ৬টা ৩৩ মিনিটে ইফতার করতে হবে শরীয়তপুর, মাদারীপুর, মুন্সিগঞ্জ, পিরোজপুর, কিশোরগঞ্জ, খুলনা, ঝালকাঠি ও নারায়ণগঞ্জে।
বরিশাল, পটুয়াখালী, নরসিংদী, বরগুনা ও সুনামগঞ্জে ইফতা করতে হবে ২ মিনিট আগে ৬টা ৩২ মিনিটে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর ও ভোলায় ইফতার করতে হবে ৩ মিনিট আগে অর্থাৎ ৬ টা ৩১ মিনিটে।
কুমিল্লা, লক্ষ্মীপুর ও হবিগঞ্জে ৪ মিনিট আগে অর্থাৎ ৬ টা ৩০ মিনিটে।

নোয়াখালী, সিলেট ও মৌলভিবাজারে ৫ মিনিট আগে অর্থাৎ ৬ টা ২৯ মিনিটে। ফেনিতে ৬টা ২৮ মিনিটে, খাগড়াছড়িতে ৬টা ২৬ মিনিটে, চট্টগ্রামে ৯টা ২৫ মিনিটে এবং বান্দরবান, রাঙামাটি ও কক্সবাজারে ১০ মিনিট আগে অর্থাৎ ৬ টা ২৪ মিনিটে।
অন্যদিকে ঢাকার থেকে ১ মিনিট সময় বাড়াতে হবে গোপালগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে। সে হিসেবে এসবস্থানে ইফতারের সময় হচ্ছে ৬টা ৩৫ মিনিটে।
টাঙ্গাইল ও নড়াইলে ৬টা ৩৬ মিনিটে। শেরপুর, জামালপুর, যশোর, মাগুরা, সাতক্ষীরা ও সিরাজগঞ্জে ৬টা ৩৭ মিনিটে। রাজবাড়ী, ঝিনাইদহে ৬টা ৩৮ মিনিটে। কুষ্টিয়া, পাবনা, গাইবান্ধা, বগুড়া ও চুয়াডাঙ্গায় ৬টা ৩৯ মিনিটে। নাটোর ও কুড়িগ্রামে ৬টা ৪০ মিনিটে। মেহেরপুর, রাজশাহী, নওগাঁ, জয়পুরহাট, রংপুর ও লালমনিরহাটে ৬টা ৪১ মিনিটে। নীলফামারী, দিনাজপুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৬টা ৪৩ মিনিটে। পঞ্চগড় ও ঠাকুগাঁওয়ে ৬টা ৪৫ মিনিটে।
রোজা রাখার প্রথম ধাপ হচ্ছে সিহরি খাওয়া। ফজরের নামাজের পূর্বে ভোর রাতে সেহরি খেতে হয়।
আবার সেহরির সময়ের মধ্যেও রয়েছে পার্থক্য। আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঢাকায় সেহরির শেষ সময় হচ্ছে ৩টা ৫০ মিনিটে। ঢাকার সাথে নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, টাঙ্গাইল, চাঁদপুর, লক্ষ্মীপুর ও কক্সবাজারে একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

গাজীপুর, জামালপুর, রংপুর, গাইবান্ধা, নোয়াখালীতে ৩টা ৪৯ মিনিটে। নরসিংদী, চট্টগ্রাম, শেরপুর, কুমিল্লা, ফেনী, কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটে ৩টা ৫২ মিনিটে। ময়মনসিংহ ও কিশোরগঞ্জে ৩টা ৪৮ মিনিটে। নেত্রকোনা, রাঙামাটি, বান্দরবান ও ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে ৩টা ৪৭ মিনিটে। খাগড়াছড়িতে ৩টা ৪৬ মিনিটে। হবিগঞ্জে ৩টা ৪৫ মিনিটে। সুনামগঞ্জে ৩টা ৪৪ মিনিটে। মৌলভিবাজারে ৩টা ৪৩ এবং সিলেটে ৪টা পর্যন্ত।
ঢাকার সময়ের থেকে ১ মিনিট বৃদ্ধি করতে মানিকগঞ্জ, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, পঞ্চগড় ও নীলফামারীতে। সে হিসেবে এসবস্থানে ৩টা ৫১ মিনিটে। ভোলা, শরীয়পুর, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, জয়পুরহাট, মাদারীপুর, বরিশাল ও ফরিদপুরে ৩টা ৫২ মিনিটে। নওগাঁ ও ঝালকাঠীতে ৩টা ৫৩ মিনিটে। নাটোর, পাবনা, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ী, মাগুরা ও পটুয়াখালীতে ৩টা ৫৪ মিনিটে। কুষ্টিয়া, রাজশাহী, পিরোজপুর, নড়াইল, বাগেরহাট, ঝিনাইদহ ও বরগুনায় ৩টা ৫৫ মিনিটে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও খুলনায় ৩টা ৫৬ মিনিটে। মেহেরপুর ৩টা ৫৭ মিনিটে এবং সাতক্ষীরায় ৩টা ৫৮ মিনিটে।