কুড়িগ্রামে এক সপ্তাহ ধরে অবরুদ্ধ একটি প্রতিবন্ধী পরিবার!

1119

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ভুমিদস্যুরা রাস্তা বন্ধ করে দেয়ায় এক সপ্তাহ ধরে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে একটি প্রতিবন্ধী পরিবার। এ ঘটনাটি ঘটেছে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার পানিমাছকুটি গ্রামে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই গ্রামের মৃত টেংরামামুদের চার ছেলের মধ্য আব্দুল বারী প্রতিবন্ধী। স্ত্রী মারা গেছেন প্রায় ১০ বছর আগে। ভাই এবং প্রতিবেশীর সহযোগিতায় প্রতিবন্ধী ২ সন্তানকে নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিন কাটাচ্ছে পৈত্রিক বসত ভিটায়। ওই বসত ভিটায় পৈত্রিক সুত্রে অংশীদার তার ভাইয়ের ছেলে আশমত অলী। তার দাবী সেখানে ৩ শতক জমি পায়। সেই জমিতে নজর পড়ে প্রতিবেশী হাফেজ মেকারের ছেলে নজির হোসেনের। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলে আসছিল।

স্থানীয় ভাবে আপোষ মিমাংসা করে আব্দুল বারী ৩ শতকের স্থলে অন্যখানে ৫ শতক জমিও বিনিময় করে। কিন্তু নজির হোসেন বেশি টাকার টোপ দেয়ায় ফ্যাসাদের সৃষ্টি হয়। কিন্তু জমি ক্রয় করতে না পারায় আব্দুল বারীর বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তাটি বন্ধ করতে অন্যান্য প্রতিবেশীদের ইন্ধন জোগায়।
তার ইন্ধনে সারা দিয়ে প্রতিবেশী শাহজামাল মিয়া, এইচ এম বাবুল ও মজিবর রহমান মিলে এক সপ্তাহ আগে বাড়ির সামনের রেকর্ডকৃত সরকারি রাস্তাটিও বন্ধ করে দেয়। ফলে বাড়ি থেকে বের হওয়ার আর কোনো রাস্ত না থাকায় ছেলে মেয়েকে নিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছেন প্রতিবন্ধী আব্দুল বারী। যার কারনে এক সপ্তাহ ধরে কাজ কর্ম করার জন্য কোথাও বের হতে পারছেন না পরিবারটির কেউই। ফলে অসহায় এ পরিবারটি মানবেতর জীবন যাপন করছে।
এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ খন্দকার ফুয়াদ রুহানী জানান, বিষয় জানার পর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।