যেভাবে ধ্বংস হয়ে যায় নেক আমল…..

983

কুল্লু নাফসিন জায়েক্বাতুল মাউত’ অর্থাৎ প্রত্যেক জানদারকেই মৃত্যুর স্বাদ নিতে হবে। মানুষ এক সময় মৃত্যুবরণ করে চলে যাবে পরপারে। যেমনিভাবে চলে গেছে আমাদের পূর্ববর্তীরা। চলে যাব আমরা। আমাদের পরে যারা আসবে তারাও মৃত্যু বরণ করবে। মৃত্যুর এ ধারা থাকবে বহমান।মুসলিম উম্মাহ অনেকই ভালো কাজ করে থাকেন। যার বিনিময়ে রয়েছে অনেক সাওয়াব ও প্রতিদান। কিন্তু অসতর্কতার কারণে তাদের নেক আমলগুলো নষ্ট হয়ে যায়। অনেকে চিন্তাই করে না যে এভাবে নেক আমলগুলো নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

আপনি যথাযথভাবে সুন্দর করে ওযু করলেন, কিন্তু এতে প্রচুর পানির অপচয় করলেন। নিয়মিত যথাসময়ে সকল নামায আদায় করলেন, কিন্তু আপনার নামায খুশু-খুজুপূর্ণ হল না। অর্থাৎ নামাজে আপনি তেমন মনোযোগ দিলেন না। দরিদ্র মানুষদের আপনি প্রচুর দান-খয়রাত করলেন, কিন্তু তাদেরকে আপনি অপমান করে তাদের মনে আঘাত দিলেন।
সুন্নত অনুসরণ করে আপনি হয়তো দাঁড়ি রাখলেন, কিন্তু রাস্তায় চলার সময় আপনার পর্দার ফরয হিসেবে দৃষ্টি ফিরিয়ে নিলেন না। রোযা রাখার জন্য আপনি তীব্র ক্ষুধা ও তৃষ্ণার কষ্ট সহ্য করে নিলেন, কিন্তু ঝগড়া ও তিরস্কার করা থেকে আপনি বিরত হলেন না। অন্যলোকের সঙ্গে আপনার কথা মধুর ও চূড়ান্ত পর্যায়ের ভদ্রতাপূর্ণ কিন্তু নিজের পরিবারের সঙ্গে আপনার কথা সর্বদাই কর্কশ।

প্রতি রাতেই আপনি তাহাজ্জুদের নামাযে দাঁড়ান, নিয়মিত নফল রোযা রাখেন ও কুরআনে অধ্যয়নে আপনার অবসর সময়কে কাটিয়ে দেন, কিন্তু নিজের আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে আপনি সম্পর্কচ্ছিন্ন করে রেখেছেন।আপনার মেহমানদের উত্তমরূপে মেহমানদারি করেন কিন্তু তাদের পিছনে তাদের নামে গীবত করেন। আপনি অন্যকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহায়তা করেন কিন্তু আপনার সাহায্য আল্লাহর সন্তুষ্টির ইচ্ছামুক্ত এবং শুধু নিজের ব্যক্তিগত স্বার্থ উদ্ধারের জন্যই আপনি এই সহায়তা করেন।আপনি লোককে উপদেশ দেন সৎপথে চলার জন্য কিন্তু সেই উপদেশ নিজেই পালন করেন না। এভাবে আপনি বিভিন্ন নেককাজই করেন, কিন্তু পেছনে এমন একটি কাজ করে বসেন যা আপনার নেককাজটিকে ক্ষতিগ্রস্ত করে, নষ্ট করে দেয়।আমাদের নিজেদের কল্যানের জন্যই এমন অবস্থা থেকে সতর্ক ও সচেতন হওয়া দরকার। আল্লাহ আমাদেরকে একমাত্র তাঁরই সন্তুষ্টি অর্জনের উদ্দেশ্যে নেকআমলগুলো করার তাওফিক দান করুন। আমীন।